What's new
Nirjonmela Desi Forum

Talk about the things that matter to you! Wanting to join the rest of our members? Feel free to sign up today and gain full access!

বউ শেয়ার করা বৈধ যে সমাজে (1 Viewer)

Laal

Exclusive Writer
Story Writer
Joined
Mar 4, 2018
Threads
103
Messages
3,573
Credits
23,640
Lollipop
Red Apple
স্ত্রী অদলবদল করার ঘটনা বিশ্বের এক স্থান নয় বরং বেশ কয়েকটি অঞ্চলে জনপ্রিয়। তবে এ রীতি বিশ্বের কয়েকটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির মধ্যে লক্ষ্য করা যায়। তাদের ধারণা, এই রীতির মাধ্যমে পরকীয়া রোধ হয় এমনকি বন্ধুত্ব ও সামাজিক বন্ধন আরও মজবুত হয়। দম্পতিদের মধ্যে প্রতারণার সমস্যার সমাধান করে এই রীতি। কারণ তারা একাধিক সঙ্গীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়াতে পারেন নির্দ্বিধায়। শুধু পুরুষরাই নন বরং নারীরাও তাদের পছন্দসই পুরুষ বেছে নিতে পারেন। আজ আপনাদের সেরকমই কয়েকটি স্থানের কথাই জানাবো-

ভারতের দ্রোকপা উপজাতি

ab171b55dbc71db6fb5dd6eac63d6ed557100916.jpg


129190967_10157248340392273_5170897097571858346_n.jpeg
হিমালয়ের আর্য হিসেবে পরিচিত এই উপজাতিদের নাম দ্রোকপা। উত্তর ভারতের সিন্ধু নদীর তীরে প্রায় তিন হাজার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস করেন। এরা মূলত আলেকজান্ডার দ্য গ্রেটের বংশধর। এই উপজাতিদের সংস্কৃতি একেবারেই আলাদা। তারা স্বাভাবিক সমাজের কোনো নিয়মই মানে না। যদিও তারা একে অপরের প্রতি খুব বন্ধুত্বপূর্ণ এবং স্নেহপূর্ণ। এই সম্পদায়ের মানুষেরা সাধারণত বিবাহ বন্ধনে জড়ায় না। তারা পলিগামি ও পলিয়ান্দ্রি (বহুবিবাহ এবং বহুপত্নী) চর্চা করে। তাদের কাছে বিবাহপূর্ব এবং বিবাহ বহির্ভূত যৌনতাও গ্রহণযোগ্য। তাই তাদের কাছে স্ত্রী বিনিময়ের প্রথা একেবারেই সাধারণ।


মালাউইর চেওয়া উপজাতি

tumblr_pqda6u5sla1skpui2_1280.jpeg
মালাউইতে বসবাসকারী চেওয়া উপজাতিদের মধ্যেও কিছু অদ্ভুত রীতিনীতি রয়েছে। মৃতদেহ দাফনের সময় তারা পানি ও খাবার সরবরাহ করে। এমনকি তারা মৃতের স্ত্রী ভাগাভাগি করার সংস্কৃতিও অনুসরণ করে। তারা বিশ্বাস করে যে খাবার যেমন ভাগ করে খাওয়া যায়, তেমনি স্ত্রীকেও ভাগ করা যায়! এই প্রথা অনুযায়ী প্রতি সপ্তাহে বন্ধুর স্ত্রীকে এভাবে ভাগ করে দেওয়া হয় অন্য বন্ধুদের সঙ্গে। এমনকি কোনও নারী যখন গর্ভবতী থাকেন, তখন সে তার স্বামীকে অন্য নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কের অনুমতি দেন। সন্তান জন্ম দেয়ার পর সন্তানের বয়স যতদিন না তিন মাস হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত তিনি তার স্বামীকে অন্য নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করতে দেন। একইভাবে যদি কোনো পুরুষের সন্তান দানের ক্ষমতা না থাকে, তাহলে তার স্ত্রীকে গর্ভধারণের জন্য তিনি অন্য পুরুষকে টাকার বিনিময়ে নিয়োগ করতে পারেন।

সাইবেরিয়ার এস্কিমো উপজাতি

NLM_16_6_Bild_1_1920.jpeg
সাইবেরিয়ার তুষারে ঢাকা এস্কিমো উপজাতি তাদের ঘর-বাড়ির জন্য বিশ্বজুড়ে পরিচিত। এই ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর সদস্যরা চাইলে তাদের স্ত্রী পরিবর্তন করে অন্য পুরুষের স্ত্রীর সাথে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে। আবার তার স্ত্রীও একইভাবে অন্য পুরুষের সাথে অবাধ যৌনাচার করতে পারে। এমনকি একজন পুরুষ বন্ধু বা ভাইয়েরাও তার স্ত্রীর সাথে রাত কাটাতে পারেন। এছাড়াও, যখন একজন নারীর স্বামী শহরের বাইরে থাকে বা শিকারে থাকে, তখন সে ইচ্ছা করলে তার স্বামীর ভাইয়ের সাথে সহবাস করতে পারে। এস্কিমো সমাজে অন্য পুরুষের সন্তান গর্ভধারণ করাও বৈধ।

নামিবিয়ার হিম্বা উপজাতি

Daily-Mail-e1519123951118-929x598.jpg
নামিবিয়ার একটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি হিম্বা উপজাতিদের মধ্যেও একই প্রথা রয়েছে। লাল চামড়ার জাতি হিসেবে পরিচিত এই উপজাতিটি অবশ্য স্ত্রী বিনিময় করে না। কিন্তু 'ওকুজেপিসা ওমুকা জেন্দু' নামের একটি প্রথা রয়েছে। সেই প্রথা অনুসারে, একজন পুরুষ তার স্ত্রীকে অতিথির সাথে এক রাত থাকার জন্য অনুমতি দেয়। যদিও স্ত্রীটি অতিথির সাথে ঘুমাতে অস্বীকার করতে পারেন। তবে তারা বেশিরভাগই তাদের স্বামীর সিদ্ধান্ত অনুসরণ করেন এবং অন্য পুরুষদের সাথে রাত কাটান। তাদের ধারণা এভাবে সম্পর্ক অটুট থাকে আর হিংসা দূর হয়ে যায়।

নাইজারের ওডাবি উপজাতি

WOD7.jpg
যদিও এই উপজাতির পুরুষরা তাদের স্ত্রীদের ভাগ করার সিদ্ধান্ত নেয় না। বরং নারীরাই তাদের সৌন্দর্যে অন্য পুরুষদের আকৃষ্ট করে। ওডাবি উপজাতির নারীরা যত খুশি তত সঙ্গীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করতে পারেন। এমনকি এই নারীরা যে কারো সঙ্গে, যে কোনো সময় যৌন সম্পর্ক করতে পারেন। ওডাবি উপজাতি অবাধ মেলামেশার সংস্কৃতি পালন করে। এই গোষ্ঠীর পুরুষরা গ্যারাওল নামের একটি সঙ্গীত ও নৃত্য উৎসব উদযাপন করে, যেটাকে বউ চুরির উৎসব বলা হয়। সেখানে নৃত্যরত পুরুষরা তাদের পছন্দের নারীকে নিয়ে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করেন, সেই নারী হতে পারে কারও বর্তমান স্ত্রী। ৭ দিনব্যাপী এই উৎসবে পুরুষদের মধ্যে চলে যৌন শক্তির লড়াই। যদিও এই সম্প্রদায়ে বহুবিবাহ ও স্ত্রী চুরি করা বৈধ। তবুও কখনও কখনও বউ চুরি করতে গিয়ে সেটা যুদ্ধ ও প্রানহানির দিকে চলে যায়।
 

Users who are viewing this thread

Back
Top