Nirjonmela Desi Forum

Talk about the things that matter to you! Wanting to join the rest of our members? Feel free to sign up today and gain full access!

  • অত্যন্ত দু:খের সাথে নির্জনমেলা পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো যাচ্ছে যে, কিছু অসাধু ব্যক্তি নির্জনমেলার অগ্রযাত্রায় প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে পূর্বের সকল ডাটাবেজ ধ্বংস করে দিয়েছে যা ফোরাম জগতে অত্যন্ত বিরল ঘটনা। সকল প্রকার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা রাখা সত্বেও তারা এরকম ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ড সংঘটিত করেছে। তাই আমরা আবার নুতনভাবে সবকিছু শুরু করছি। আশা করছি, যে সকল সদস্যবৃন্দ পূর্বেও আমাদের সাথে ছিলেন, তারা ভবিষ্যতেও আমাদের সাথে থাকবেন, আর নির্জনমেলার অগ্রনী ভূমিকায় অবদান রাখবেন। সবাইকে সাথে থাকার জন্য আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। বি:দ্র: সকল পুরাতন ও নুতন সদস্যদের আবারো ফোরামে নুতন করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। সেক্ষেত্রে পুরাতন সদস্যরা তাদের পুরাতন আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

মার্চ-২০১৯ মাসের হাজিরা থ্রেডের ফলাফল

Status
Not open for further replies.

ছোটভাই

Global Moderator
Staff member
Global Mod
Joined
Mar 4, 2018
Threads
705
Messages
37,050
Credits
265,101
Tea cup
Laptop
Tea cup
Pie chart
Balance
Time is money
সামনেই পহেলা বৈশাখ, এরই মাঝে অনেকেই এবারের কাল-বৈশাখীর নমুনা দেখে ফেলেছেন। আজ যখন আমি লিখছি ঠিক তখনও আকাশ কালো করে ধেয়ে আসছে হয়তো এবারের আরো এক কালবৈশাখী। সাবধানে থাকুন, পরিবার কে নিরাপদে রাখুন। আর আমার ব্যাস্ততার কারনে এমাসের হাজিরার ফলাফল দিতে দেরি হওয়ায় হালকা করে ক্ষমা করে দিবেন। তো শুরু করি, কি বলেন?

এ মাসের হাজিরায় মোট অংশগ্রহন করেছেন ৫৪ জন। বেশিরভাগই একদিনের পার্টি। নিয়মিত যারা এখানে হাজিরা দিয়ে আসছেন এবার ব্যাস্ততার কারনে অনেকেই পিছিয়ে পড়েছেন সাথে আমি নিজেও। সবার আগে ১৬ দিন, দিনের শুরুতে হাজিরা দিয়ে অন্যান্যবারের মতই ফার্স্ট এন্ড ফিউরিয়াস হয়েছেন আমাদের মরুভূমীর জলদস্যু মামা। কিন্তু দুঃখের বিষয় উনি প্রথম হতে পারেন নি এ মাসেও। মার্কশীট দেখলেই বুঝবেন এক মার্কে ফেল।

দিপু মামা বরাবরের মতই দেশ-বিদেশে ঘুরে বেড়ানোর কারনে মাসের শেষের দিকে এসে আর নিয়মিত হতে পারেন নি। আশাকরি আগামীতে উনি আবার সক্রিয় হবেন। অবশ্য আমাদের স্টাফ প্যানেলের মেম্বররা আরো বেশি সক্রিয় হয়েছেন এই লড়াইয়ে। আর যার কথা না বললেই নয় তিনি আমাদের এই প্রতিযোগীতার সবচেয়ে সক্রিয় সদস্য যিনি যান্ত্রিক গোলযোগের কারনে তিনদিন হাজিরা দিতে না পারায় একদিন হাজিরা দিয়ে বলে দিয়েছেন যে উনি চার দিনের হাজিরা একদিনেই দিয়ে ফেললেন। উনার যান্ত্রিক গোলযোগ দূর হোক এই কামনা করছি। আমাদের ইমরানহীমি মামা কে প্রথম স্থানে ছাড়া মানায় না।

আমাদের ফোরামের মধ্যমণি গত ফেব্রুয়ারিতে আমাদের মাঝে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে আমাদের অনেকদিনের আকাঙ্ক্ষা পুরন করেছেন, প্রায় সারাদিন আমরা তাকে জ্বালিয়ে হয়রান করে দিয়েছি। কিন্তু শেষ বেলায় তিনি যখন দেশ ছেড়ে বিদায় নিলেন তখন আর তার সাথে দেখা করতে পারলাম না। একটা আক্ষেপ আবারো তৈরী হলো। আশা করব পরেরবার আমাদের মিলনমেলা আরো বেশি সংখ্যক সদস্য নিয়ে জাকজমকভাবে করতে পারব।

তো মাক্সুদের সেই বিখ্যাত গানটি গাইতে গাইতে সামনে আগাই;

জেগেছে বাঙ্গালির ঘরে ঘরে এ কি মাতন দোলা
জেগেছে সুরেরই তালে তালে হৃদয় মাতন দোলা
বছর ঘুরে এলো আরেক প্রভাত নিয়ে
ফিরে এলো সুরের মঞ্জুরী
পলাশ শিমুল গাছে লেগেছে আগুন
এ বুঝি বৈশাখ এলেই শুনি

মেলায় যাইরে মেলায় যাইরে
বাসন্তী রঙ শাড়ি পড়ে ললনারা হেটে যায়
ঐ বখাটে ছেলেদের ভিড়ে ললনাদের রেহাই নাই
মেলায় যাই রে মেলায় যাই রে

জেগেছে রমণীর খোপাতে বেলী ফুলের মালা
ভিনদেশী সুগন্ধী মেখে আজ প্রেমের কথা বলা
রমনা বটমূলে গান থেমে গেলে
প্রখর রোদে এ যেন মিছিল চলে
ঢাকার রাজপথে রঙের মেলায়
এ বুঝি বৈশাখ এলেই শুনি...

মেলায় যাইরে মেলায় যাইরে
বাসন্তী রঙ শাড়ি পড়ে ললনারা হেটে যায়
ঐ বখাটে ছেলেদের ভিড়ে ললনাদের রেহাই নাই
মেলায় যাই রে মেলায় যাই রে
 
Status
Not open for further replies.
Top